Type to search

Personal Opinion

দেশ এগিয়ে নিতে চাইলে প্রয়োজন ‘একতা’।

Share

দেশের ৭৫ভাগ মানুষের মতামতকে অগ্রাহ্য করে ক্ষমতায় গদি টিকিয়ে রাখা যাবে কিন্তু তাদের মন পাওয়া যাবে না। আরেকটা কথা, দেশের অর্ধেক মানুষকে প্রতিপক্ষ ভেবে সুযোগ-সুবিধা বঞ্চিত করে এইদেশ কখনই সিংগাপুর কিংবা মালায়শিয়া হতে পারবে না। আমি বা আমরা সিঙ্গাপুরের ইতিহাস পড়েছি। সিঙ্গাপুরের জাতির জনক লি কুয়ান ইউ সর্বপ্রথম তার দেশে শতভাগ তরুণকে দেশের কাজে অংশগ্রহণ করতে উদ্বুদ্ধ করেছেন এবং দুর্নীতির বিরুদ্ধে কঠোর অবস্থান নিয়েছিলেন।

মালায়শিয়ার মাহাথির মুহাম্মদ একই কাজ করেছেন এবং ৯২বছর বয়সে নিজ দলের বিরুদ্ধে লড়েছেন শুধুমাত্র তাঁর পূর্বের দল দুর্নীতিগ্রস্থ হয়ে পড়েছিল বিঁধায়। আমাদের দেশে সরকার যেখানে নিজেরা দুর্নীতি করে ক্ষমতায় বসে, তারা আবার করবে দুর্নীতি দমন?
আমার দেশে কি হয় এবং কি হবে তা আমরা জানি। আজ থেকে আবারো প্রায় অর্ধেকের বেশী মানুষকে অগ্রাহ্য করা হবে। এই অর্ধেকের বেশী মানুষকে ভাবা হবে প্রতিপক্ষ। আপনারা কি মনে করেন এভাবে অর্ধেকের বেশী মানুষকে নিস্ক্রিয় করে দেশ এগিয়ে যাবে? দেশ সিংগাপুর, মালায়শিয়া হয়ে যাবে? আপনারা ভাবলেও আমি ভাবতে পারি না।

একটা কথা জেনে রাখুন, ‘সুশাসন’ ছাড়া একটা রাষ্ট্র কখনও সঠিক পথে চলার দাবী করতে পারে না। একটি স্বাধীন দেশে আইনের শাসন বা সুশাসন খুব জরুরী এবং অবশ্যই জরুরী গণতন্ত্রটাও। নতুন সরকারের কাছে একটা দাবী করতে চাই, যদি সত্যিকার অর্থে মানুষের সমর্থন চান, তাহলে যদি পারেন শতভাগ তরুণকে কাজে লাগান। তাদের মতামতকে শ্রদ্ধা করুন। মিলেমিশে দেশটাকে এগিয়ে না নিলে স্বপ্ন অধরা থেকে যাবে।

Leave a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *